পরকীয়া প্রেম, হোটেলে ফুর্তি করতে এসে সর্বস্ব খোয়ালেন প্রবাসীর স্ত্রী সুমি!

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও এলাকার এক প্রবাসীর স্ত্রী তার পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে কক্সবাজার শহরের কলাতলি সুগন্ধা পয়েন্ট এলাকায় এসআর গেস্ট হাউসে ফুর্তি করতে এসে প্রতারণা শিকার হয়েছে। প্রবাসীর স্ত্রীর প্রেমিক তাকে ওই গেস্ট হাউসে নিয়ে গিয়ে চেতনা নাশক ওষুধ খাইয়ে স্বর্ণালংকার ও দামি মোবাইল ফোন নিয়ে সটকে পড়েছে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) কক্সবাজার শহরের কলাতলি সুগন্ধা পয়েন্ট এলাকায় এসআর গেস্ট হাউসে এ ঘটনা ঘটে।অবচেতন অবস্থায় ওই প্রবাসীর স্ত্রীকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে ওই গৃহবধূ জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ওই গৃহবধূ এখন অনেকটাই জ্ঞান ফিরে পেয়েছে।

জানা যায়, প্রতারণার শিকার ঈদগাঁও জাগীর পাড়া এলাকার প্রবাসী রাসেল এর স্ত্রী সুমি আক্তার (৩০)। এ ঘটনায় পুরো এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
এসআর গেস্ট হাউস কতৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তারা গেস্ট হাউসে আসেন। গেস্ট হাউস রেজিষ্ট্রারে তাদের নাম এন্ট্রি করেন। এন্ট্রি খাতার তারা পরিচয় দিয়েছেন, চকরিয়া বাটাখালী এলাকার সুমি আক্তার ও তার স্বামী হিসেবে নাম লিখান শামিম (৩০)।

সূত্রে আরও জানায়, স্বামী পরিচয় দানকারী শামীম রাত সাড়ে ৯টার দিকে রুম থেকে বের হয়ে যান। এরপরই গেস্ট হাউসের রুম বয় তাদের রুমে গিয়ে দেখতে পায় সুমি আক্তার অবচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। তাকে অনেক ডাকা ডাকি করার পরেও ঘুম থেকে না জাগলে, গেস্ট হাউস ম্যানেজার তাকে দ্রুত জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। বর্তমানে ওই প্রবাসীর স্ত্রী জেলা সদর হাসপাতালের ৫ম তলায় চিকিৎসাধীন।

গৃহবধূ সুমি আক্তার জানান, তার স্বামীর নাম রাসেল, সে প্রবাসী। তার স্বামীর বাড়ি কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও জাগীর পাড়া এলাকায়। তার সাথে প্রতারণাকারী পরকীয়া প্রেমিক তাকে চেতনা নাশক ওষুধ সেবন করিয়ে তার প্রবাসী স্বামী রাসেলের দেয়া তিন ভরি স্বর্ণালংকার ও একটি দামি স্যামসাং মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *