নিজের মায়ের নামে ‘পাগলির সন্তানের’ নাম রাখলেন ওসি

পটুয়াখালীঃ অজ্ঞাত পাগলির কোলজুড়ে আসা নবজাতকের নাম নিজের মায়ের নামে ‘ফাতেমা রহমান’ রেখে শিশুটিকে মায়ের মর্যাদা দিলেন পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার পর রোববার শিশুটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তরের সময় তার এই নাম রাখেন ওসি।

১৪ জানুয়ারি সদর উপজেলার কমলাপুর এলাকায় প্রসব বেদনায় কাতরানো অজ্ঞাত এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে দ্রুত পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

ওই দিনই ওই নারী একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে উধাও হয়ে যায়। সেই সময় থেকে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান শিশুটির দেখাশোনা করে আসছেন।

ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একাধিক স্থানে খোঁজ করেও শিশুটির মাকে পাওয়া যায়নি। ১৪ দিন চিকিৎসা ও লালন-পালন শেষে রোববার হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন ওসি।

তিনি বলেন, হস্তান্তরের সময় মা হারা এই নবজাতকের পরিচয় নিয়ে জটিলতা দেখা দিলে আমি আমার মৃত মায়ের নামে শিশুটির নাম রাখি। শিশুটির জন্য পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন, সমাজসেবা এবং মহিলা বিষয় অধিদফতরসহ অনেকেই হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। শিশুটি দত্তক নিতেও ইতোমধ্যে অনেকে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তি শিশুটিকে দত্তক নিতে পারবেন।

পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের উপ-পরিচালক এসএম শাহাজাদা বলেন, শিশুটিকে বরিশালের শিশু হোম কেয়ারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী শিশুটি বরিশালের আগৈলঝড়া শিশু হোম কেয়ারে থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *